Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

ভাঙড়ের পরিস্থিতি সামলাতে আসরে নামছেন মুখ্যমন্ত্রী, ভবানি ভবনে পুলিশকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক

Subscribe to Oneindia News

কলকাতা, ১৮ জানুয়ারি : ভাঙড়ের পরিস্থিতি সামলাতে এবার আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার নবান্নে যাওয়ার পথে আচমকাই তাঁর গাড়ি ঘুরে যায় ভবানি ভবনের দিকে। ভবানি ভবনে এক উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেন পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে। গত তিনদিন ধরে অগ্নিগর্ভ ভাঙড়ে শান্তি ফেরাতে মুখ্যমন্ত্রীর এই বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।[গায়ের জোরে জমি অধিগ্রহণ তৃণমূলের নীতি নয়, মাওবাদী-ভোটবাদীরা ইন্ধন দিচ্ছে ভাঙড়ে : পার্থ]

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এডিজি আইনশৃঙ্খলা অম্বুজ শর্মা। ছিলেন কলকাতা পুলিশের কমিশনারও। অন্যান্য পুলিশ অফিসাররাও ছিলেন এই বৈঠকে। মুখ্যমন্ত্রী প্রায় আধ ঘণ্টা বৈঠক শেষে জানান, এই বৈঠক একেবারেই রুটিন বৈঠক। এর সঙ্গে কোনও সম্পর্ক নেই ভাঙড়ের।[নন্দীগ্রামের পর ভাঙড়েও তৃণমূলের হাত ধরে প্রবেশ মাওবাদীদের! ব্যাখ্যা দিলীপ ঘোষের]

ভাঙড়ের পরিস্থিতি সামলাতে আসরে নামছেন মুখ্যমন্ত্রী, ভবানি ভবনে পুলিশকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক

ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে, রুটিন বৈঠক হলেও এদিন ভাঙড়ের পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয় বৈঠকে। বৈঠকের সিংহভাগ জুড়েই ছিল ভাঙড়। মুখ্যমন্ত্রী আগেই পুলিশকে সাবধান করেছিলেন, অশান্ত পরিবেশে হঠকারী সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না। এমন কোনও সিদ্ধান্ত নয়, যাতে আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। পুলিশকে ধৈর্য্য ধরতে নির্দেশ দেন তিনি।[জোর করে জমি অধিগ্রহণ নয়, প্রয়োজনে পাওয়ার গ্রিড সরানো হবে : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়]

রাজনৈতিক মহল মনে করছে, পুলিশের সঙ্গে বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিশ্চয়ই জানার চেষ্টা চালিয়েছেন, ওই এলাকায় যাওয়া যায় কি না। কারণ, বারবার ভাঙড়ের বাসিন্দারা দাবি জানাচ্ছেন, মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রামে এসে আশ্বাস দিয়ে যেতে হবে। তবেই উঠবে আন্দোলন। মুখ্যমন্ত্রীর এদিনের বৈঠকের পর সিদ্ধান্তি নিতে পারেন গ্রামে যাওয়ার।[অশান্ত ভাঙড়, নিজের এলাকায় ঢুকতেই পারলেন না রেজ্জাক]

এর আগে মুখ্যমন্ত্রী প্রতিনিধি পাঠিয়েছেন। কিন্তু এলাকার বিধায়ক হয়েও মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিনিধি রেজ্জাক মোল্লা ঢুকতে পারেননি এলাকায়। মানুষ তাঁকে ঢুকতে দেননি। তাঁদের এক ও একমাত্র দাবি, মুখ্যমন্ত্রীকে আসতে হবে। তাঁরা মুখ্যমন্ত্রী ছাড়া আর কারও কথা বিশ্বাস করবেন না।

English summary
Chief Minister came forward to handle the situation of Bhangar. CM met with Police officer.
Please Wait while comments are loading...