Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে আগুন জ্বলছে ভাঙড়ে, এলাকা দখলের যুদ্ধে আরাবুল বনাম রেজ্জাক

Subscribe to Oneindia News

দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ২৩ ডিসেম্বর : ভাঙড় উত্তপ্ত তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে। আরাবুল ইসলাম বনাম আবদুল রেজ্জাক যুদ্ধ চলছেই। জ্বলছে ভাঙড়। বোমাবাজি, গুলি, উত্তেজনা চরমে। একপক্ষ পার্টি অফিস দখল করে তো, অন্য পক্ষ জমি-ভেড়ির দখল নিতে তৎপর। একদিন আক্রান্ত হচ্ছে রেজ্জাক অনুগামীরা, অন্যদিন পাল্টা আক্রান্ত আরাবুল-অনুগামীর বাড়িঘর।

বৃহস্পতিবার রাতে প্রদীপ মণ্ডল নামে আরাবুল ঘনিষ্ঠ এক তৃণমূল নেতার বাড়িতে হামলা চালায় তৃণমূলের একটা গোষ্ঠী। অভিযোগের তির রেজ্জাক শিবিরের দিকে। অভিযোগ, প্রদীপ মণ্ডলের বাড়িতে ঢুকে ভাঙচুর চালায় একদল দুষ্কৃতী। বাড়ি লক্ষ্য করে বোমাবাজি করা হয়। ছোড়া হয় গুলিও। এই ঘটনায় ২৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ভাঙড় থানায়। অভিযুক্ত রেজ্জাক ঘনিষ্ঠ তৃণমূলীরা।

গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে আগুন জ্বলছে ভাঙড়ে, এলাকা দখলের যুদ্ধে আরাবুল বনাম রেজ্জাক

প্রদীপবাবুর অভিযোগ, গায়ের জোরে মাছের ভেড়ি, জমি দখল করে দেওয়া হচ্ছে। জোর যার মুলক তার, এমনই ভাব ভাঙড়ের। এখন পর্যন্ত দু'জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।প্রতিদিনই একটা না একটা ঘটনা ঘটছে। আর প্রতি ঘটনাতেই প্রতিপক্ষ আদি তৃণমূল বনাম নব্য তৃণমূল। কিংবা বলা ভালো, রেজ্জাক বনাম আরাবুল।

কয়েকদিন আগেই পার্টি অফিস দখলকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায়। কাশীপুর থানা এলাকার নতুনহাটে তৃণমূল পার্টি অফিসে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়। এই ঘটনায় অভিযুক্ত আরাবুল অনুগামীরা। তাদের বিরুদ্ধে বোমাবাজি, পার্টি অফিসে হামলার অভিযোগ এনেছেন মোস্তাফা মোল্লা নামে এক তৃণমূল নেতা। এলাকা সর্বদা রণক্ষেত্র হয়ে থাকায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন স্থানীয়রা। থানায় বিক্ষোভ দেখান তাঁরা।

English summary
Bhangar is fired for violence of Group-clash of TMC. War continue against Arabul and Rejjak
Please Wait while comments are loading...