Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

আত্মীয় সেজে দম্পতির উপর হামলা, পরদিনই গেস্ট হাউসে হামলাকারীর মৃতদেহ!

Subscribe to Oneindia News

কলকাতা ও হাওড়া, ১৩ ফেব্রুয়ারি : কালীঘাটে আত্মীয় সেজে দম্পতির উপর হামলা। পরদিন হাওড়ায় হামলাকারীর দেহ উদ্ধার। রবিবার রাতে হাওড়ার গোলাবাড়ির এক গেস্ট হাউস থেকে উদ্ধার হল ওই হামলাকারীর দেহ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। তদন্তকারীরাও ধন্দে, এটি নিছকই আত্মহত্যা নাকি খুনের ঘটনা।[বাইপাসের ধারে ফ্ল্যাটে টলি অভিনেত্রীর রহস্যমৃত্যু, তদন্তে পুলিশ]

পুলিশ তদন্ত নেমে জানতে পেরেছে, এই হামলা ও হামলাকারীর রহস্য মৃত্যুর ঘটনার মধ্যে সম্পর্ক রয়েছে। আর এই ঘটনা পরাম্পরার পিছনে রয়েছে রেসের টাকার ভাগ বাটোয়ারা সম্পর্কিত বিবাদ। পুলিশ এই সিরিয়াল ক্রাইমের তদন্ত শুরু করেছে। শীঘ্রই সত্য প্রকাশ্যে আসবে বলে মনে করছে গঙ্গাপারের দুই থানার পুলিশ।[দেশের ৫ সিরিয়াল কিলার, যাদের কাহিনী শুনলে রক্ত হিম হয়ে যায় !]

আত্মীয় সেজে দম্পতির উপর হামলা, পরদিনই গেস্ট হাউসে হামলাকারীর মৃতদেহ!

শনিবার কালীঘাট টেম্পল রোড জৈন পরিবারে আত্মীয় সেজে এসেছিলেন রোশনলাল নামে এক জন। সঙ্গে ছিল সুনীল ও আরও এক ব্যক্তি। বেশ খোশগল্প করে কাটছিল রাতটা। তারপরই স্বরূপ বের করলেন রোশনলাল ও তার সঙ্গীরা। ছাদে গিয়ে গৃহকর্তা নরেন্দ্র জৈনের উপরর হামলা চালালেন রোশনলাল। ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালানো হয়। গুরুতর আহত হন নরেন্দ্র জৈন। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হন স্ত্রী সরলাও। দু'জনেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি।[রেগে গিয়ে স্টাম্প ছুঁড়লেন ব্যাটসম্যান, মৃত ১৪ বছরের ফিল্ডার]

পুলিশ এই ধারণায় বিশ্বাসী যে, ব্যবসায়িক শত্রুতার জেরেই এই হামলা। আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত কারণেই হামলা চালানো হয়েছে। এখন প্রশ্ন, ওই হামলাকারীর দেহ উদ্ধার নিয়ে। হামলার পরদিনই তাঁর দেহ উদ্ধার হল হাওড়ার গোলাবাড়ির একটি গেস্ট হাউস থেকে। বিষক্রিয়ায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্ত অনুমান। কিন্তু বিষ খেয়ে ওই হামলাকারী নিজেই আত্মহত্যা করল নাকি তাকে খুন করা হল, তা নিয়েই ধন্দ।[দুর্ঘটনায় রক্তাক্ত কিশোর, সাহায্যে এগিয়ে না এসে ভিডিও তুলল পথচারীরা]

পুলিশ তদম্তে নেমে জানতে পেরেছে, নরেন্দ্র জৈন একজন রেসের বুকি। কলকাতায় রেসের মাঠে তাঁর ১৫টি ঘোড়া নামে। শুধু কলকাতাই নয়, মুম্বই ও হায়দরাবাদেও তিনি কাজ করতেন। রেসের টাকার ভাগ সংক্রান্ত কোনও বিবাদেই এই হামলা কি না তা খতিয়ে দেখার পাশাপাশি হামলাকালীর রহস্য মৃত্যুর কারণ জানতেও তৎপর তদন্তকারীরা।

English summary
Pretending to be relative a criminal attacked on the couple. The day after body of the attacker was rescued from Guest House!
Please Wait while comments are loading...