Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

পণের টাকা না মেলায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে খুন, গ্রেফতার স্বামী-শ্বশুর-শাশুড়ি

ফের পণের বলি অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ। পণের টাকা না মেলায় গৃহবধূকে খুন করার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। মৃতা গৃহবধূ নয়মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন

Subscribe to Oneindia News

বাঁকুড়া, ২১ এপ্রিল : ফের পণের বলি অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ। পণের টাকা না মেলায় গৃহবধূকে খুন করার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। মৃতা গৃহবধূ নয়মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। বৃহস্পতিবার রাতে বাঁকুড়ার কোতলপুরের সিহড় গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার সকালে অন্নপূর্ণা বেতালের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃতার বাপের বাড়ির অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে স্বামী, শ্বশুর-শাশুড়িকে।

সিহড় গ্রামের বাসিন্দা সুমন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিয়ে হল অন্নপূর্ণা বেতালের। এই বিয়ের সম্পর্ক মেনে নেয়নি পরিবার। পরে পরিবার মেনে নেওয়ার পরই পণের জন্য চাপ দেওয়া শুরু হয়। প্রথমে দু'লাখ টাকা চাওয়া হয়। এক লাখ টাকা দেয় অন্নপূর্ণার বাপের বাড়ির লোকজন। বাকি এক লাখ টাকার জন চাপ দিতে থাকে। অন্নপূর্ণার উপর শুরু হয় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন।

পণের টাকা না মেলায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে খুন, গ্রেফতার স্বামী-শ্বশুর-শাশুড়ি

অভিযোগ, বিয়েতে যে গয়না পেয়েছিল অন্নপূর্ণা তাও শ্বশুরবাড়ির তরফে হাতিয়ে নেওয়া হয়। ওই গয়না বন্ধক দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। মৃতার বাবা উদয়শংকর বেতাল কোতলপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁর অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই পণের জন্য চাপ দিতে থাকে জামাই ও তার বাড়ির লোকজন। একবার টাকা দেওয়ার পর, ফের গয়না ছাড়াবে বলে টাকা চায়। তা না পেয়েই মেয়েকে খুন করেছে ওরা। এই অভিযোগের ভিত্তিতে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

English summary
a-pregnant-house-wife-was-murdered-dowry-at-bankura
Please Wait while comments are loading...