Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

হাতে কালি দিলে উপনির্বাচনে ভোট দেওয়ার কী হবে? টুইটে প্রশ্ন মমতার

Subscribe to Oneindia News

কলকাতা, ১৫ নভেম্বর : মোদি সরকারের পিছনে পড়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লিতে বিজেপি বিরোধী মঞ্চের নেতৃত্বভার নিজের কাঁধে তুলে নিয়ে যেমন মোদির ঘুম কেড়েছেন, তেমনি লাগাতার চালিয়ে যাচ্ছেন টুইট-যুদ্ধ। আবারও মোদি সরকারের টাকা তুললেই হাতে কালি লাগানোর সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন টুইটে। প্রশ্ন তুললেন, আগামী ১৯ নভেম্বর উপনির্বাচন। নির্বাচনী ক্ষেত্র এলাকায় সাধারণ গ্রাহকের হাতে কালি লাগলে তাঁরা ভোট দেবেন কীভাবে? নির্বাচন কমিশনার এবার ভাবুন বিষয়টি! মমতা বলেন, এটা প্রমাণ করে কেন্দ্রীয় সরকার মানুষকে বিশ্বাস করে না।

সম্প্রতি ৫০০ ও হাজার টাকার নোট বাতিল করেছে কেন্দ্র। মোদির ঘোষিত পথে নোট বাতিল হলেও, এখনও পর্যন্ত নতুন টাকার জোগান মেলেনি। সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর সাতদিন অতিক্রান্ত হয়ে গিয়েছে। এ ব্যাপারে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার যে প্রস্তুতি না নিয়েই এই তুঘলকি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা আজ প্রমাণিত। এখনও এটিএমে টাকা নেই। নতুন ছাপানো দু'হাজার টাকা এলেও, অপর্যাপ্ত সেই টাকা ব্যাঙ্কেই সীমাবদ্ধ থেকেছে।

হাতে কালি দিলে উপনির্বাচনে ভোট দেওয়ার কী হবে? টুইটে প্রশ্ন মমতার

৫০০ টাকার নোট এখনও চোখে দেখেননি মানুষ। আসবে আসবে করেই কেটে গিয়েছে পুরো এক সপ্তাহ কাল। এই অবস্থায় খুচরো সঙ্কটে মানুষ নাজেহাল। তাঁদের সেই হয়রানির কথা জানাতেই বিরোধীদের নিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির কাছে যাচ্ছেন। আগামীকালই তিনি রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করবেন।

এরই মধ্যে মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, টাকা বদলালেই হাতে কালি লাগিয়ে দেবে ব্যাঙ্ক। এক্ষেত্রে টুইট করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তুলেছেন, তাহলে আগামী ১৯ নভেম্বর উপনির্বাচনে ভোট দেবেন কী করে ভোটাররা। বিষয়টি নির্বাচন কমিশনারের দৃষ্টি আকর্ষণের দাবি তুলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আশা এ ব্যাপারে নিশ্চয়ই একটা স্পষ্ট বার্তা দেওয়া হবে কেন্দ্রীয় সরকার ও নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে।

English summary
What happens to the ink in the by-election to vote? Mamata's tweet
Please Wait while comments are loading...