Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

শিশু পাচারকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়, মছলন্দপুর এনজিও-র অফিসের পিছনে মিলল শিশুর কঙ্কাল

Subscribe to Oneindia News

উত্তর ২৪ পরগনা, ২৫ নভেম্বর : শিশুপাচার কাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়। এবার উত্তর ২৪ পরগনার মছলন্দপুর এনজিও-র অফিসের পিছন থেকে মিলল একটি শিশুর কঙ্কাল। এখানে আরও শিশুর কঙ্কাল রয়েছে বলে ধারণা সিআইডি-র। ওই অফিসের পিছনের জমি ও এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছেন তদন্তকারীরা। কঙ্কাল উদ্ধারের পর শিশুপাচারে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজুর আর্জি জানাবে সিআইডি।

মছলন্দপুরের রানিডাঙার সুজিত দত্ত মেমোরিয়াল ট্রাস্ট আদতে দুঃস্থ শিশুদের আশ্রয়স্থল। আর তার আড়ালেই চলত শিশু পাচারের র‍্যাকেট। তদন্ত নেমে বাদুড়িয়ার নার্সিংহোমে শিশু পাচার চক্রের হদিশ পাওয়ার পরই উঠে আসে এই ট্রাস্টের নাম। এই ট্রাস্টেই দুঃস্থ, অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের রেখে পুরো প্রক্রিয়া চালানো হত। অন্তঃসত্ত্বাদের রাখা থেকে শিশুদের দত্তক নেওয়ার জাল নথি তৈরি- প্রতিটি পর্যায়েই এই ট্রাস্টের ভূমিকা ছিল। রাজ্যজুড়ে ছড়িয়ে এই শিশু পাচারের চক্র।

শিশু পাচারকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়, মছলন্দপুর এনজিও-র অফিসের পিছনে মিলল শিশুর কঙ্কাল

প্রতিদিনই একটা না একটা নার্সিংহোম, চিকিৎসকদের নাম উঠে আসছে এই ঘটনায়। এদিনই ঠাকুরপুকুরের একটি মহিলা প্রতিবন্ধী হোম থেকে উদ্ধার হয়েছে ১০ জন শিশু। তার অদ্যাবধি পরেই ট্রাস্টে অভিযান চালিয়ে কঙ্কাল উদ্ধার হল শিশুর। এই কঙ্কাল উদ্ধারের ঘটনায় সিআইডি-র ধারণা, মৃত শিশুদের ওই জায়গায় সমাধি দেওয়া হত। সেই কারণেই শুধু একটি নয়, আরও শিশুর কঙ্কাল উদ্ধার হতে পারে ট্রাস্ট সংলগ্ন এলাকা থেকে।

তদন্তকারী অফিসাররা তদন্ত নেমে জানতে পেরেছে, দূরদূরান্ত থেকে দুঃস্থ মায়েদের এখানে আনা হত। দুঃস্থ অন্তঃস্বত্ত্বা মহিলাদের এখানে প্রসবেরও ব্যবস্থা করা হত। ট্রাস্টের ঘরেই রাখা হত মা ও সদ্যোজাত শিশুদের। পরে ওই হোমেই শিশুকে রেখেই চলে যেতেন মা। তারপর শিশু বিক্রি হয়ে যেত মোটা টাকার বিনিময়ে। কয়েকবছর ধরেই শিশু বিক্রির কারবার জমে উঠেছিল। ক্রমেই বাড়ছিল শিশু পাচারের র‍্যাকেট। শহর ও শহরতলির অনেক সংগঠনই এই চক্রে যুক্ত। সিআইডি সেই জাল গুটিয়ে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে।

এদিকে ঠাকুরপুকুর থেকে ১০ শিশু উদ্ধারের ঘটনায় সিআইডি জানতে পেরেছে প্রতিবন্ধীদের ওই হোমের একাংশ মালিকানা রয়েছে বেহালার নার্সিংহোম থেকে শিশু পাচার চক্র ধৃত পুতুল বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তার ভাই মহেশ ওই হোম দেখভাল করত। এদিন মহিলা প্রতিবন্ধী আবাসনের কর্মীদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

English summary
skeleton found in the back office of machlandapura NGO
Please Wait while comments are loading...