Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

'নোংরা পোশাকের ড্রাইভার' সঙ্গে, তাই মহিলাকে ঢুকতে দিল না পার্ক স্ট্রিটের অভিজাত রেস্তোরাঁ!

  • By: Oneindia Bengali Digital Desk
Subscribe to Oneindia News

কলকাতা, ১২ সেপ্টেম্বর : মাত্র কয়েকদিনের জন্যই কাজের খাতিরে কলকাতায় এসেছিলেন দিলাসি হেম্মানি। এই সফরে তাঁর গাড়ির চালক ছিলেন "মণীশ ভাইয়া।" শুধু গাড়ির চালক নয়, কলকাতার এই ছোট্ট সফলে এই মণীশ তাঁকে নানভাবে সাহায্য করেছেন । তাই 'ড্রাইভার' মণীশ ভাইয়াকে যাওয়ার আগে কৃতজ্ঞতা জানাতে ট্রিট দেওয়ার জন্য পার্ক স্ট্রিটের এক অভিজাত রেস্তোরাঁয় নিয়ে গিয়েছিলেন দিলাসি। কিন্তু সেখানে যা হল তা কল্পনাও করেননি তিনি। [দুর্গাপুজোর ভুরিভোজ : পুজোর একদিন পাত পেড়ে বাঙালি খাবার খেতে ঢুঁ মারুন এই রেস্তোরাঁগুলিতে!]

কলকাতায় পা রাখার পর থেকে যেভাবে আতিথেয়তা ও সহযোগীতা পেয়েছিলেন, তাতে এই শহরকে আলাদা করে ভালবাসতে শুরু করেছিলেন ভিন শহরের এই মেয়ে। কিন্তু একটা ঘটনা তাঁর কাছে এক গ্লাস দুধে একফোঁটা চোনা হয়ে থাকবে চিরদিন।

নোংরা পোশাকের 'ড্রাইভার' সঙ্গে, তাই মহিলাকে ঢুকতে দিল না পার্ক স্ট্রিটের অভিজাত রেস্তোরাঁ!

ইন্ডিয়া টাঅমসে প্রকাশিত সংবাদ এবং দিলাসির ফেসবুক পোস্ট অনুযায়ী, পার্ক স্ট্রিটের অভিজাত রেস্তোরাঁ মোকাম্বো-য় মণীশ ভাইয়াকে খাওয়াতে নিয়ে গিয়েছিলেন দিলাসি। সেখানে মিথ্যা অভিযোগ দেখিয়ে তাদের ভিতরে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়।

অভিযোগ, বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষা করানোর পর দিলাসিকে টেবিল দিতে অস্বীকার করে রেস্তোরাঁর এক কর্মী। বলে, মণীশের দিকে আঙুল দেখিয়ে বলেন, ওঁর পোশাক রেস্তোরাঁর জন্য উপযুক্ত নয়। দিলাসি তাদের কাছে রেস্তোরাঁর ড্রেস কোড জানতে চাইলে ওই কর্মী জানানে, তাদের রেস্তোরা বলে নয়, কোনও ফাইন ডাইন রেস্তোরাঁতেই এই ধরণের পোশাক গ্রহণযোগ্য নয়। [(ছবি) ব্যাঙ্গালোরেই এক টুকরো 'মিনি কলকাতা'!]

নোংরা পোশাকের 'ড্রাইভার' সঙ্গে, তাই মহিলাকে ঢুকতে দিল না পার্ক স্ট্রিটের অভিজাত রেস্তোরাঁ!

রেস্তোরাঁর ওই কর্মীর কথায় মেজাজ হারান দিলাসি। তিনি রেস্তোরাঁর ম্যানেজারের সঙ্গে দেখা করতে চান। কিন্তু ম্যানেজার আরও এককাঠি এগিয়ে অভিযোগ তোলেন মণীশ মদ্যপ অবস্থায় রয়েছেন তাই তাঁকে ঢুকতে দেওযা যাবে না। এই ঘটনা নিয়ে দিলাসি ও রেস্তোরাঁর ম্যানেজারের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। শেষমেষ রেস্তোরাঁর ম্যানেজার স্পষ্ট কথায় জানিয়ে দেন, মণীশের সঙ্গে দিলাসিকে রেস্তোরাঁয় ঢুকতে দেওয়া হবে না। খেতে গেসে দিলাসিকে একাই ঢুকতে হবে।

এই ঘটনার পর যদিও দিলাসি এতটাই ক্ষুব্ধ হন এবং অপমানিত বোধ করেন যে তিনি সেখান থেকে মণীশকে সঙ্গে নিয়ে চলে যান। পরে অবশ্য গোটা ঘটনাটি নিজের ফেসবুক পেজে লিখেছেন তিনি। পোস্ট মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় সোস্যাল মিডিয়ায়। [ধর্ষিতা তাই ঢুকতে দেওয়া হয়নি কালীঘাটের রেস্তোরাঁয়, অভিযোগ পার্কস্ট্রিট কাণ্ডের পীড়িতার]

এই ঘটনায় রেস্তোরাঁর নিন্দায় সরব হয়েছেন অনেকেই। তবে তাতে কান দিচ্ছে না মোকাম্বো কর্তৃপক্ষ। উল্টে তাদের ফেসবুক পেজে কমেন্টে বলা হচ্ছে, "আমরা ফাইন ডাইনিং রেস্তোরাঁ, অভিজ্ঞতা নিতে আসুন। কিন্তু ভাল পোশাকে আসবেন যাতে আপনাকে বিত্তশালী দেখতে লাগে। ইংরাজিতে কথা বলুন আপনাকে আমরা নিশ্চই রেস্তোরাঁয় বসতে দেব।শুধু নোংরা জামা কাপড় পরে গরীব মানুষেরা এলে যারা ভারতীয় ভাষায় কথা বলে তাদের আমরা ভিতরে ঢুকতে দিই না।"

নোংরা পোশাকের 'ড্রাইভার' সঙ্গে, তাই মহিলাকে ঢুকতে দিল না পার্ক স্ট্রিটের অভিজাত রেস্তোরাঁ!

অনেকে এই অভিজাত রেস্তোরাঁকে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছেন। কেউ কেউ আবার মোকাম্বোর লাইসেন্স বাতিল করার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে টুইটারে আর্জি জানিয়েছেন।

English summary
This Kolkata Restaurant Refused To Give Table To A Woman Because She Was With Her Driver
Please Wait while comments are loading...