Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

উলুবেড়িয়ার পর কলকাতা, দুই এসবিআই গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব প্রায় ৩ লক্ষ টাকা

  • By: Oneindia Bengali Digital Desk
Subscribe to Oneindia News

কলকাতা, ২২ অক্টোবর : উলুবেড়িয়ার পর কলকাতার বাগুইআটি ও সন্তোষপুর। একের পর এক এটিএম জালিয়াতির ঘটনার উদ্বিগ্ন রাজ্যের স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার গ্রাহকরা। উলুবেড়িয়ার রাজু দত্তের পর বাগুইআটির শিক্ষিকা সুস্মিতা দাস ও সন্তোষপুরের ব্যবসায়ী মৃণাল মণ্ডলের অ্যাকাউন্ট থেকে রহস্যজনকভাবে গায়েব হয়ে গেল টাকা। এটিএম জালিয়াতির খবর ছড়িয়ে পড়তেই স্টেট ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টরা পাশবই আপডেট করতেই জালিয়াতির খবর প্রকাশ্যে চলে আসছে।  [৩০ লক্ষ ডেবিট কার্ডের তথ্য ফাঁস বাজারে, আপনার কার্ড তাতে নেই তো? জেনে নিন]

সুস্মিতাদেবীর স্টেট ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে রাতারাতি উধাও হয়ে গেছে ৮২ হাজার টাকা। তেঘরিয়ার বাসিন্দা সুস্মিতা দাস বলেন, এটিএম জালিয়াতির খবর দেখেই গতকাল নিজের অ্যাকাউন্ট চেক করতে যান তিনি। টাকা তোলার পরে বুঝতে পারেন, অ্যাকাউন্ট থেকে ৮২ হাজার টাকা উধাও হয়ে গেছে। শনিবার তিনি বাগুইআটি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। বাগুইআটি থানা এই জালিয়াতির তদন্ত শুরু করেছে। বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানাও এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে। [এটিএম কার্ড উলুবেড়িয়ায়, দিল্লি-মুম্বই থেকে গায়েব হয়ে গেল অ্যাকাউন্টের সমস্ত টাকা!]

উলুবেড়িয়ার পর কলকাতা, দুই এসবিআই গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব প্রায় ৩ লক্ষ টাকা

ব্যাঙ্কের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগও তুলেছেন সুস্মিতাদেবী। বাগুইআটি শাখার এই অ্যাকাউন্ট ছিল সুস্মিতা দেবীর স্যালারি অ্যাকাউন্ট। তাঁর দাবি, তাঁদের এই অ্যাকাউন্টে ৩ লাখ ৫৩ হাজার টাকা ছিল। গত বুধবার ব্যাঙ্কে গিয়ে পাসবই আপডেট করান সুস্মিতাদেবী। তখনও সব ঠিক ছিল। একদিন পরেই দেখছেন তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে ৮২ হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে।

একইভাবে সন্তোষপুরের ব্যবসায়ী মৃণাল মণ্ডলের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকেও তুলে নেওয়া হয়েছে দু' লক্ষ ৯১ হাজার টাকা। তিনিও সন্তোষপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। রাজ্যে স্টেট ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রেই এই জালিয়াতির ঘটনা বেশি ধরা পড়ছে। এতে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ছেন গ্রাহকরা।

English summary
ATM Fraud : After Uluberia two SBI customer facing same problem at Kolkata
Please Wait while comments are loading...