Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

কোন সম্ভাবনা দেখে TRAPPIST-1 সৌরজগত নিয়ে এত উৎসাহিত বিজ্ঞানীরা

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

সাতটি গ্রহ নিয়ে তৈরি একটি সৌরজগতের সন্ধান পেয়েছেন মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার বিজ্ঞানীরা। প্রতিটি গ্রহই পৃথিবীর আকারের এবং যার মধ্যে জল ও প্রাণের সন্ধান পাওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে আশাবাদী বিজ্ঞানীমহল।[নতুন সৌরজগতের সন্ধান , রয়েছে পৃথিবীর মতো ৭টি গ্রহ]

এতদিন পৃথিবীর এত কাছে মহাকাশের একটি সৌরজগতের খোঁজ পাওয়ার বহির্বিশ্বে প্রাণের সন্ধান চালানোর যে প্রক্রিয়া বিজ্ঞানীরা চালিয়ে যাচ্ছেন তার গতি আরও তরান্বিত হবে সেবিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। তবে এই কেন এই সৌরজগতের সন্ধান বিজ্ঞানীদের এতটা উৎসাহিত করেছে তা জেনে নেওয়া যাক একনজরে।[(ছবি) TRAPPIST-1 সৌরজগত নিয়ে অজানা তথ্য জেনে নিন একনজরে]

পৃথিবীর খুব কাছে

পৃথিবীর খুব কাছে

যে সৌরজগতের খোঁজ বিজ্ঞানীরা পেয়েছেন তা পৃথিবী থেকে ৪০ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। অর্থাৎ পৃথিবী থেকে ২৩৫ ট্রিলিয়ন মাইল দূরত্ব। মহাকাশ গবেষণার মান অনুযায়ী এই দূরত্ব খুব বেশি নয়। তবে পৃথিবীর সবচেয়ে দ্রুতগামী যাত্রীবাহী বিমান নিয়ে সেখানে পাড়ি দিলে ৪৪ মিলিয়ন (১ মিলিয়ন = ১০ লক্ষ) বছরের মধ্যেই সেখানে পৌঁছে যাওয়া যাবে। মহাজাগতিক গবেষণার জন্য এই সৌরজগত আদর্শ হতে পারে।

নতুন মহাকাশের জগত

নতুন মহাকাশের জগত

ক্ষুদ্র TRAPPIST-1 নক্ষত্রটিকে ঘিরে রয়েছে ৭টি গ্রহ। এগুলি গড়ে ১-২০ দিনের মধ্যে নক্ষত্রটিকে প্রদক্ষিণ করে। যদি TRAPPIST-1-কে আপনি সূর্য ধরেন, তাহলে বুধ পর্যন্ত সূর্যের যে দূরত্ব, তার মধ্য়েই পুরো সৌরজগতের অবস্থান। অর্থাৎ আমাদের সৌরজগতের কাছে আকারে এটি এতটাই ছোট। এবং এর গ্রহগুলি অত্যন্ত কাছাকাছি অবস্থান করছে।

গোল্ডিলকস জোন

গোল্ডিলকস জোন

এই নতুন TRAPPIST-1 সৌরজগতের তিনটি গ্রহ এমন রয়েছে যা বসবাসযোগ্য হতে পারে বলে বিজ্ঞানীরা মনে করছেন। সেখানে এমন আদর্শ পরিবেশ যা জল ও প্রাণের বিকাশের জন্য অনুকূল। বাকী চারটি গ্রহ গোল্ডিলকস জোন-এ রয়েছে। তবে এগুলিতে প্রাণ থাকার সম্ভাবনা বিশেষ নেই।

দেখতে কেমন

দেখতে কেমন

TRAPPIST-1 নক্ষত্রটি অপেক্ষাকৃত শীতল। এর থেকে লাল রঙ বিচ্ছুরণ হয়। যদি আপনি এর কোনও একটি গ্রহে পা রাখেন তাহলে দেখবেন নক্ষত্রটির রঙ স্যামন রঙের। অর্থাৎ ধূসর লালচে বা বাদামি রঙা। এদিকে পাশের গ্রহগুলিকেও দেখতে পাওয়া যাবে। পৃথিবী থেকে আমরা যেমন চাঁদকে দেখি তেমনই TRAPPIST-1-এর কোনও একটি গ্রহে দাঁড়িয়ে বাকীগুলিকে দেখা যাবে তবে তা আকারে অনেক বড় হবে।

এবার তাহলে কি হতে পারে

এবার তাহলে কি হতে পারে

মহাকাশ বিজ্ঞানীরা এবার নতুন করে সন্ধান পাওয়া সৌরজগতের বিষয়ে গবেষণা করবেন। পাথুরে এই গ্রহগুলিতে আদৌও প্রাণ ও জলের উৎস রয়েছে কিনা তা নিয়ে গবেষণা হবে। এবং ইতিমধ্যে হাবল স্পেস টেলিস্কোপ দিয়ে গবেষণা শুরু করে হয়ে গিয়েছে। আগামী বছরের মধ্যে জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপ এই গবেষণার কাজে যুক্ত হবে। এর মাধ্যমে সেই গ্রহগুলিতে অক্সিজেন, মিথেন, ওজোনের উপস্থিতি রয়েছে কিনা তা যাচাই করে হবে।

এতদিনে যেকটি গ্রহ আবিষ্কার হয়েছে

এতদিনে যেকটি গ্রহ আবিষ্কার হয়েছে

মহাকাশ বিজ্ঞানীরা এতদিনের গবেষণায় ৩৬০০টি গ্রহকে মহাকাশে খুঁজে পেয়েছেন। তবে এর মধ্যে মাত্র ৫০টির কাছাকাছি গ্রহ 'হ্যাবিটেবল জোন' বা বসবাসযোগ্য অবস্থায় রয়েছে। যার মধ্যে মাত্র ১৮টির আকার পৃথিবীর মতো।

English summary
Scientists have spotted seven Earth-size planets around a nearby star, some or all of which could harbour water and possibly life. That's the biggest cluster of planets like this yet to be found. Here are some cool facts about this new-found planetary system that has scientists excited.
Please Wait while comments are loading...