Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

ভেবেছিলাম ধর্ষিত হব, কিন্তু ওরা টাকা নিয়েই পালাল, প্যারিস ডাকাতি নিয়ে মুখ খুললেন কিম কার্ডাশিয়ান

Subscribe to Oneindia News

গত বছর অক্টোবর মাসে প্যারিসে নিজের হোটেল রুমে ডাকাতির ভয়াবহ অভিজ্ঞতা হয়েছিল জনপ্রিয় টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব কিম কার্ডাশিয়ানের । এতদিন চুপ থাকার পর অবশেষে ভয়াবহ সেই অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খুললেন কিম।[(ছবি) 'প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য' : মরুভূমিতে ফটোশুটে ফের নগ্ন কিম কার্ডাসিয়ান]

কিপিং আপ উইথ দ্য কার্ডাশিয়ান অনুষ্ঠানে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানান কিম। তিনি বলেন, "ওরা আমার মাথায় বন্ধুক ঠেকিয়ে আমার মুখ টেপ দিয়ে আটকে দিল, যাতে আমি চিৎকার করতে না পারি। তারপর ওরা আমার পা ধরল। আমি বাথ রোব পরে ছিলাম। নিচে পোশাক এমনকী অন্তর্বাসও ছিল না। একজন আমাকে আমার পা ধরেই বিছানার উপরেই নিজের দিকে টানল, আমি বুঝলাম সেই মুহূর্ত এসে গিয়েছে। ওরা আমাকে এবার ধর্ষণ করবে। সেই মুহূর্তের জন্য নিজেকে মানসিক ভাবে প্রস্তুতও করে ফেলেছিলাম। কিন্তু ওরা কিছু করেনি। আমার পা শুধু টেপ দিয়ে বেঁধে দিল ওরা।"[(টুইটার ছবি) কিম কার্ডাসিয়ানের নগ্ন ছবি টুইট করলেন স্বামী ক্যানইয়ে ওয়েস্ট]

ভেবেছিলাম ধর্ষিত হব, কিন্তু ওরা টাকা নিয়েই পালাল, প্যারিস ডাকাতি নিয়ে মুখ খুললেন কিম কার্ডাশিয়ান

না থেমে কিম বলে গেলেন, "তারপর আমার মাথায় পিস্তল ধরল, আমি নিশ্চিত ছিলাম ওরা আমাকে এবার মাথায় গুলি করে মারবে। আমার মৃতদেহ বিছানায় দেখার পরও যেন কার্টনি (কিমের বোন) যেন সাধারণ জীবনযাপন করতে পারে সেই প্রার্থণাই করে যাচ্ছিলাম মনে। কিন্তু ওরা শুধু গয়না নিয়েই পালাল।"[(ছবি) কিম কার্ডাসিয়ানের সেরা ১০ বিকিনি লুক]

উল্লেখ্যে প্যারিসে সেই সময় একটি অনুষ্ঠানের জন্য গিয়েছিলেন কিম। ৩ অক্টোবর হোটেলে তাঁর ঘরে বাথরুমের সামনে একদল বন্দুকবাজ তাঁকে আক্রমণ করে। এবং তাঁকে গানপয়েন্টে রেখে ২০ ক্যারেটের হীরের আংটি-সহ ৪.৫ মিলিয়ন ডলারের গয়না নিয়ে পালায় দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনার পর থেকে ১৭ জন সন্দেহভাজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।[(ছবি) 'প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য' : ব্রিটিশ পত্রিকা জিকিউ -এর জন্য ফের নগ্ন কিম কার্ডাসিয়ান]

English summary
Kim Kardashian thought she would be raped, killed during Paris robbery
Please Wait while comments are loading...