সাজা মওকুফের পর কর্মবিরতি প্রত্যাহার করেছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা

  • Posted By: BBC Bengali
Subscribe to Oneindia News
বগুড়ায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি (শনিবারের ছবি)
ফোকাস বাংলা
বগুড়ায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি (শনিবারের ছবি)

বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চারজন ইন্টার্ন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া শাস্তিমূলক ব্যবস্থা তুলে নেবার পর কর্মবিরতি প্রত্যাহার করেছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা।

দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ধানমন্ডির বাসভবনে ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের সঙ্গে এক জরুরী বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য কর্মকর্তা পরীক্ষিত চৌধুরী জানিয়েছেন, বৈঠকে কয়েকদিনের ধর্মঘটে দেশের চিকিৎসাসেবা মারাত্মকভাবে ব্যহত হবার ঘটনায় দু:খপ্রকাশ করেন ইন্টার্ন চিকিৎসক নেতৃবৃন্দ।

এরপর ভবিষ্যতে চিকিৎসা সেবাকে জিম্মি করার মত ঘটনা যাতে আর না ঘটে সে বিষয়ে, নেতৃবৃন্দ স্বাস্থ্য মন্ত্রীকে আশ্বাস দিলে, চারজন ইন্টার্ন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দেয়া শাস্তিমূলক ব্যবস্থা তুলে নেবার ঘোষণা দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এরপরই কর্মবিরতি প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন আন্দোলনরত ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা।

মি. চৌধুরী জানিয়েছেন, ঐ বৈঠকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদ নেতৃবৃন্দ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বগুড়ার সরকারী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একজন রোগীর স্বজনকে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা পিটিয়েছে এই অভিযোগ ওঠার পর এবং ইন্টার্ন চিকিৎসকরা রোগীর স্বজনদের পেটাচ্ছে এমন একটি ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়লে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় একটি তদন্ত করে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের চারজনের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়।

শাস্তির প্রতিবাদে শনিবার থেকে কর্মবিরতি পালন করছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

পরে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় রাজশাহী, রংপুর, দিনাজপুর, খুলনা মেডিকেল কলেজ ও সিরাজগঞ্জের নর্থবেঙ্গল মেডিকেল কলেজের শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা।

রোববার ময়মনসিংহ ও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও কর্মবিরতি শুরু হয়।

BBC
English summary
Interns called off strike after their punishment resolved .the interns were students of Shahid jiaur Raheman medical college.
Please Wait while comments are loading...