Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

স্বামী পেটানোয় বিশ্বসেরা এই দেশের মহিলারা!

  • By: OneIndia Bengali Digital Desk
Subscribe to Oneindia News

কায়রো, ১০ অগাস্ট : মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিতে সাধারণভাবে নারীর অধিকার খর্ব হওয়ার ঘটনা নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। নারীর অধিকার এই দেশগুলিতে একেবারে পদদলিত। অত্যাচার ও অবহেলার শিকার এইসব দেশের নারীরা যুগের পর যুগ ধরেই অত্যাচার সহ্য করে আসছে। [এলিয়েনের অস্তিস্ব রয়েছে, দেখতেও মানুষের মতোই, বলছেন বিশেষজ্ঞরা]

তবে মুদ্রার উল্টো পিঠও রয়েছে। আরব দেশগুলির মধ্যে এমন দেশও রয়েছে যে দেশটির মহিলারা স্বামী পেটানোয় বিশ্বসেরা তকমা অর্জন করেছেন। রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্ট বলছে, নিজের স্বামীকে অপমান করতে ও মারধর করতে ওস্তাদ মিশর বা ইজিপ্টের মেয়েরা। [৬০ বছর ধরে গর্ভবতী নব্বই বছরের বৃদ্ধা]

স্বামী পেটানোয় বিশ্বসেরা এই দেশের মহিলারা!

জাতিসংঘের রিপোর্ট বলছে, এরপরই রয়েছে যুক্তরাজ্য ও ভারত। মিশরের আদালত সূত্রে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই রিপোর্ট তৈরি হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, ৬৬ শতাংশ ক্ষেত্রে স্ত্রীরা স্বামীর সঙ্গে হীন আচরণ ও মারধরের পরে আদালতে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা দায়ের করেছেন। [নিজের স্বামী বিল ক্লিন্টনকে পেটাতেন হিলারি ক্লিন্টন!]

মিশরের আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, স্ত্রীর অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে বহু পুরুষও আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। সেই সংখ্যাটাও বেশ কয়েক হাজার। [২০২২ সালেই ভারত হবে 'পৃথিবীর সবচেয়ে জনবহুল দেশ']

তথ্য বলছে, মিশরীয় মহিলারা শুধুমাত্র স্বামীর গায়ে হাত তুলেই ক্ষান্ত থাকেন তা নয়। মারধর করতে তারা অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করেন পিন, বেল্ট, জুতো থেকে শুরু করে রান্নাঘরের নানা সামগ্রী। কেউ কেউ মারাত্মক অস্ত্রের ব্যবহার করেছেন সেরকম ঘটনাও ঘটেছে।

যদিও কোনও কোনও আরব দেশের সংবাদমাধ্যম গোটা খবরটিকে ভুয়ো বলে উড়িয়ে দিয়েছে। তাদের ব্যাখ্যা জাতিসংঘ এমন কোনও সমীক্ষা করে না। ফলে এই তথ্যের কোনও ভিত্তি নেই।

English summary
Egyptian women number one in beating husbands, shows UN study
Please Wait while comments are loading...