Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

১৮০০ কোটি পুরনো নোট নিয়ে কী করবে আরবিআই? জানলে অবাক হবেন

  • Written By:
Subscribe to Oneindia News

নয়াদিল্লি, ৩০ নভেম্বর : পুরনো নোট আগামী ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে ব্যাঙ্কে জমা করতে হবে। বাজারে তা ব্যবহার করতে পারবেন না। কেন্দ্র তা সাফ জানিয়ে দিয়েছে। শুধু কয়েকটি সরকারি জায়গা ও পেট্রোল পাম্পে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত পুরনো নোটে লেনদেন করা যাবে।

কালো টাকা কারবারিদের ধরতে জন ধন অ্যাকাউন্টের জন্য এই নিয়ম লাগু করল আরবিআই

ধরা পড়লে কালো টাকার মালিকদের কী অবস্থা করবে কেন্দ্র তা জেনে নিন

ডিসেম্বর মাস কেটে গেলে পুরনো নোট কেউ জমা না করলে তা কাগজের টুকরো ছাড়া আর কোনও কিছু হিসাবেই গণ্য হবে না। তবে জানেন কি কালো টাকা ও দুর্নীতি কমাতে বাতিল ৫০০ ও ১ হাজার টাকার নোট দিয়ে পরে কি করবে আরবিআই?

১৮০০ কোটি পুরনো নোট নিয়ে কী করবে আরবিআই? জানলে অবাক হবেন

আরবিআই সূত্রে খবর, সবমিলিয়ে বাজারে মোট ১৮০০ কোটি বাতিল নোট রয়েছে। যার বাজার মূল্য ১৪ লক্ষ কোটি টাকা। যার মধ্যে ৬০ শতাংশই ব্যাঙ্কে ইতিমধ্যে জমা পড়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

কীভাবে ধরে ধরে বেহিসাবি টাকা বের করবে সরকার, জেনে নিন

নতুন তিনটি অ্যাকাউন্ট খুলে ৪০ কোটি টাকার পুরনো নোট জমা

আরবিআই যারা ভারতে নোটের ছাপা ও সার্কুলেশনের দায়িত্বে রয়েছে তারা জানিয়েছে, এত কোটি কোটি নোটকে ছিঁড়ে টুকরো করে তা রিসাইকলিং বা পুনর্ব্যবহারযোগ্য কাগজে পরিণত করা হবে।

আরবিআইয়েরই এমন নোট টুকরো করার ব্যবস্থা রয়েছে। ব্যাঙ্কগুলি পুরনো নোট পাঠাতে শুরু করলেই তা স্তূপাকৃত করে রাখার পর এই প্রক্রিয়া শুরু হবে। শেষপর্যন্ত পুরনো নোট ছিঁড়ে তা দিয়ে ক্যালেন্ডার, ফাইল, বোর্ড ইত্যাদি তৈরি হবে।

অতীতে পুরনো নোট সমস্ত পুড়িয়ে ফেলত আরবিআই। তবে ২০০১ সাল থেকে ছেঁড়া বাতিল নোটকে এভাবেই পুনর্নবীকরণ করার প্রক্রিয়া চালু করা হয়েছে।

সূত্রের খবর, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নোট বাতিলের ঘোষণার পরে কেরলের একটি প্লাইউড কোম্পানিকে পরীক্ষামূলকভাবে বেছে নিয়ে পুরনো ছেঁড়া নোটের টুকরো পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। ছেঁড়া নোটের কাগজের সঙ্গে কাঠের গুড়ো মিশিয়ে তা মেশিনের মাধ্যমে কিছু একটা তৈরির চেষ্টা চলছে।

English summary
What RBI will do with 18 billion 500 and 1,000 rupee notes
Please Wait while comments are loading...