Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

'শিশু পর্ন' রোধে নয়া পদক্ষেপ সুপ্রিম কোর্টের

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

নয়াদিল্লি, ২৩ মার্চ : আপত্তিকর ভিডিও ও শিশু পর্নোগ্রাফি ইন্টারনেটে আপলোড করা আটকাতে সেরকম কোনও মেকানিজম নেই। ইন্টারনেট জায়ান্ট কোম্পানিগুলি ও কেন্দ্র একথা সুপ্রিম কোর্টকে জানিয়ে দিয়েছে। এই অবস্থায় শিশু পর্ন বন্ধে তৎপর কেন্দ্র নতুন পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছে।[স্বামী পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত, সরাসরি সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগ স্ত্রীর]

সর্বোচ্চ আদালত গুগল, মাইক্রোসফট, ইয়াহু, ফেসবুকের মতো বড় সংস্থার ঊর্ধ্বতন আধিকারিকদের ভারতে ডেকে এনে ১৫দিনের একটি সম্মেলনের আয়োজন করার নির্দেশ দিয়েছে। সেই বৈঠকের মধ্য দিয়েই সমাধানসূত্র বের করার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।[পর্ন দেখতে গিয়ে ধরা পড়লেন কর্ণাটকের শিক্ষামন্ত্রী]

'শিশু পর্ন' রোধে নয়া পদক্ষেপ সুপ্রিম কোর্টের

বিচারপতি মদন বি লোকুর ও ইউইউ ললিত গত একবছরের বেশি সময় ধরে অনলাইনে শিশু পর্ন ও ধর্ষণের ভিডিও আটকানোর নানা পথ যাচাই করে চলেছেন। বিভিন্ন ওয়েবসাইটের পাশাপাশি স্যোশাল নেটওয়ার্কিং সাইটেও এই ধরনের ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে।[দিল্লি পুলিশের শপিং তালিকায় 'পর্ন ডিটেকশন স্টিক',ডিলিট হওয়া পর্নো উপাদানও খুঁজে বের করবে এই যন্ত্র]

এই সংক্রান্ত উচ্চ পর্যায়ের কমিটি তৈরি করা হয়েছে। তার প্রধান হয়েছেন ইলেকট্রনিক্স ও ইনফরমেশন টেকনোলজি মন্ত্রকের অতিরিক্ত সচিব। তাঁর নেতৃত্বেই বহুজাতিক বিভিন্ন ইন্টারনেট সংস্থার কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক চালানো হবে। আগামী ৫ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে এই বৈঠক।[যৌনতার নানা মারপ্যাঁচ শেখাতে খুলল বিশ্বের প্রথম 'পর্ন অ্যাকাডেমি']

গুগল ও ফেসবুকের তরফে জানানো হয়েছিল যে তাদের প্রতিনিধিরা ১৫দিনের এই সম্মেলনে সশরীরে উপস্থিত থাকতে পারবেন না। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তাঁরা যোগ দেবেন। যদিও সুপ্রিম কোর্ট সেই আবেদন খারিজ করে দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, হায়দ্রাবাদের একটি স্বেচ্ছ্বাসেবি সংস্থা ইন্টারনেটে শিশু পর্ন, ধর্ষণের ভিডিও ও অন্যান্য নানা আপত্তিকর ভিডিও ছাড়ার বিরুদ্ধে আদালতে আপিল করে ও অবিলম্বে তা বন্ধ করার কথা জানায়। সেই প্রসঙ্গে বড় ইন্টারনেট জায়ান্টরা জানিয়ে দেয়, প্রতিদিন কোটি কোটি ভিডিও ইন্টারনেটে আপলোড হয়। ফলে তা চেক করার কোনও মেকানিজম নেই।

English summary
The SC directed top technocrats of Google, Microsoft, Yahoo and Facebook to participate in brain storming sessions to find out ways to deal with the problem.
Please Wait while comments are loading...