Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

অক্সিজেন সাপ্লাই বন্ধ হবে, জানতেন গোরক্ষপুরের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, তাও ব্যবস্থা নেননি, সামনে এল চিঠি

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

সরকারি ঔদাসীন্য ও অপদার্থতা কোন পর্যায়ে পৌঁছতে পারে, গোরক্ষপুরের সরকারি হাসপাতাল বাবা রাঘবদাস মেডিক্যাল কলেজ এখন সারা দেশের সামনে সেই উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত নিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে। গত ৪৮ ঘণ্টায় ৩৬জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে এই হাসপাতালে। আর গত পাঁচদিনের হিসাব ধরলে তা প্রায় সত্তর ছুঁইছুঁই। সবচেয়ে বড় কথা, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের নিজের এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে যেখান থেকে গত ২০ বছর ধরে লোকসভা ভোটে দাঁড়িয়ে জিতছেন যোগী।

[আরও পড়ুন:মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কেন্দ্রে অক্সিজেনের অভাবে ৩০টি শিশু মৃত্যুর অভিযোগ]

অক্সিজেন সাপ্লাই বন্ধ হবে, জানতেন গোরক্ষপুরের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, তাও ব্যবস্থা নেননি, সামনে এল চিঠি

জানা গিয়েছে, যে সংস্থা হাসপাতালে অক্সিজেন সাপ্লাই করে তাদের বকেয়া জমে গিয়েছিল ৬৩ লক্ষ টাকার বেশি। সংস্থা যে আর বেশিদিন অক্সিজেন সিলিন্ডার সাপ্লাই করবে না তা মুখ্য মেডিক্যাল অফিসারকে চিঠি লিখে জানান হাসপাতালের স্টোরের দায়িত্বে থাকা কর্মীরা। জানানো হয়, স্টক প্রায় শেষ হয়ে এসেছে।

[আরও পড়ুন : সরকারি হাসপাতালে পাঁচ দিনে ৬৩ শিশুর মৃত্যুর দায় কার, উঠছে প্রশ্ন]

হাসপাতালের বহু রোগীকেই অক্সিজেনের মধ্য দিয়ে বাঁচিয়ে রাখতে হয়। ফলে একটা মুহূর্তও অক্সিজেন ছাড়া হাসপাতালের চলবে না। ঘটনার গুরুত্ব বুঝিয়ে অপারেটররা ফের একবার পরের সপ্তাহে চিঠি লেখেন। তবে অভিযোগ, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কোনওভাবে সাড়া দেননি।

গত পাঁচদিনে ৬৭ জন শিশু মারা গিয়েছে। এবং গত কয়েকমাসে এই হাসপাতালে মোট ১১৭জন শিশু মারা গিয়েছে। তা সত্ত্বেও অক্সিজেন সিলিন্ডার শেষ হয়ে যাওয়া নিয়ে খবর পেয়েও কর্তৃপক্ষ কীভাবে এতটা উদাসীন হল তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েই যাচ্ছে।

তবে এসবের মাঝেই আর একটি ঘটনা যা সকলের অগোচরে থেকে গিয়েছে তা হল এই সময়ের মধ্যেই এই হাসপাতালে মোট ১৮ জন সাবালকের মৃত্যু হয়েছে।

যে সংস্থার সঙ্গে চুক্তি হয়েছিল সেই পুষ্পা সেলস গত ১ অগাস্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে চিঠি লিখে বকেয়া মেটানোর আবেদন জানায়। তবে তা সত্ত্বেও কোনও সাড়া দেয়নি কর্তৃপক্ষ। ঘটনা হল, এই হাসপাতালে মাইনে নিয়েও অভিযোগ রয়েছে। বহু কর্মী দীর্ঘ কয়েকমাস পরে বেতন পেয়েছেন। কিছু বিভাগের কর্মীরা দীর্ঘ ছয়মাস ধরে বেতন না পেয়ে কাজ করে চলেছেন।

এই এলাকায় জাপানি এনকেফেলাইটিসের প্রকোপে বহু মানুষ মারা যান। ক্ষমতায় আসার আগে এখানে ১৭০০ কোটি টাকা ব্যয়ে এইমস হাসপাতাল তৈরির কথা ঘোষণা করেছে বিজেপি সরকার। তবে যা অবস্থা তাতে কোনও রাজনৈতিক দলই সাধারণ মানুষকে নিয়ে ভাবিত নয়, বিক্ষুব্ধ মানুষরা তেমনই দাবি করেছেন।

English summary
Oxygen shortage alert was informed in two letters to Gorakhpur hospital authorioties, but no action taken
Please Wait while comments are loading...