Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

তেলঙ্গানায় কবর দেওয়ার আগে নড়ে উঠল সদ্যোজাত, ঠিক কী হয়েছিল

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

সরকারি হাসপাতালে অবহেলা কোন পর্যায়ে পৌঁছতে পারে তা বাঙালি আমজনতার কমবেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে। সরকারি হাসপাতালের সেই ট্রেন্ড যে তেলঙ্গানায়ও বজায় রয়েছে তার নিকৃষ্ট উদাহরণ মিলল রবিবার।

তেলঙ্গানার ওয়ারঙ্গলে সরকারি হাসপাতালে কর্তব্যরত আধিকারিকদের গাফিলতির জেরে এক সদ্যোজাতর প্রাণ থাকা সত্ত্বেও তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে।

সরকারি হাসপাতালে অবহেলা কোন পর্যায়ে পৌঁছতে পারে তা বাঙালি আমজনতার কমবেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে। সরকারি হাসপাতালের সেই ট্রেন্ড যে তেলঙ্গানায়ও বজায় রয়েছে তার নিকৃষ্ট উদাহরণ মিলল রবিবার। তেলঙ্গানার ওয়ারঙ্গলে সরকারি হাসপাতালে কর্তব্যরত আধিকারিকদের গাফিলতির জেরে এক সদ্যজাতর প্রাণ থাকা সত্ত্বেও তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। বাড়ির লোকেরা ও বাবা-মা যখন অসীম কষ্ট বুকে নিয়ে সন্তানের সৎকার করার তোড়জোড় করছে, তখন দেখা যায় কোলের সন্তান নড়াচড়া করছে। সঙ্গে সঙ্গে সদ্যজাতকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে শেষরক্ষা হয়নি। সেখানে বেশ কয়েকঘণ্টা মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে শিশুটি মারা যায়। হাসপাতালের গাফিলতি সামনে আসায় দোষ ঢাকতে নেমে পড়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। জানানো হয়, ইসিজি মেশিন সকালে কাজ করছিল না। তাই এই বিপত্তি। তবে এটাই প্রথম নয়, গতমাসেও এভাবেই দিল্লির এক হাসপাতালের বিরুদ্ধে একইরকম অবহেলার অভিযোগ উঠেছিল। পরিবারের তরফে রোহিত নামে সদ্যজাতের পিতা জানান, শিশুকে মৃত ঘোষণা করে হাসপাতালের নার্স ও চিকিৎসকেরা প্যাকেটে মুড়ে লেবেল লাগিয়ে বাচ্চা দিয়েছিল। পরে প্যাকেটের মধ্যেই বাচ্চা নড়ে ওঠে। তখনই দেখা যায় বাচ্চাটি বেঁচে ছিল।

বাড়ির লোকেরা ও বাবা-মা যখন অসীম কষ্ট বুকে নিয়ে সন্তানের সৎকার করার তোড়জোড় করছে, তখন দেখা যায় কোলের সন্তান নড়াচড়া করছে। সঙ্গে সঙ্গে সদ্যোজাতকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে শেষরক্ষা হয়নি। সেখানে বেশ কয়েকঘণ্টা মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে শিশুটি মারা যায়।

হাসপাতালের গাফিলতি সামনে আসায় দোষ ঢাকতে নেমে পড়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। জানানো হয়, ইসিজি মেশিন সকালে কাজ করছিল না। তাই এই বিপত্তি। তবে এটাই প্রথম নয়, গতমাসেও এভাবেই দিল্লির এক হাসপাতালের বিরুদ্ধে একইরকম অবহেলার অভিযোগ উঠেছিল।

পরিবারের তরফে রোহিত নামে সদ্যোজাতের পিতা জানান, শিশুকে মৃত ঘোষণা করে হাসপাতালের নার্স ও চিকিৎসকেরা প্যাকেটে মুড়ে লেবেল লাগিয়ে বাচ্চা দিয়েছিল। পরে প্যাকেটের মধ্যেই বাচ্চা নড়ে ওঠে। তখনই দেখা যায় বাচ্চাটি বেঁচে ছিল।

English summary
Newborn declared dead by Warangal hospital found alive before funeral
Please Wait while comments are loading...