Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

হাসপাতালের ICU তে পরীক্ষার নামে মহিলা রোগীর যৌনাঙ্গে হাত চিকিৎসকের

  • Written By:
Subscribe to Oneindia News

মুম্বই, ১৬ ডিসেম্বর : মুম্বইয়ের নানাবতী হাসপাতালের এক চিকিৎসককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ছয় মাস আগে আইসিইউয়ের মধ্যে এর রোগীকে যৌন হেনস্থা করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ২৮ বছর বয়সী নানাবতী হাসপাতালের রেসিডেন্ট চিকিৎসক কায়ান সিয়োডিয়া পরীক্ষার নামে এক মহিলা রোগীর গোপনাঙ্গে আঙুল ঢুকিয়ে দেন। মাত্রাতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন, এমন রোগীর সঙ্গেই অভব্য আচরণ করেন চিকিৎসক কায়ান।

হাসপাতালের ICU তে পরীক্ষার নামে মহিলা রোগীর যৌনাঙ্গে হাত চিকিৎসকের

ঘটনাটি ঘটেছে গত জুন মাসের প্রথমদিকে। মহিলা পুলিশকে জানিয়েছেন, চিকিৎসক কায়ান নাকি জানিয়েছিলেন, চিকিৎসা পদ্ধতির অঙ্গ হিসাবে এটা তাকে করতে হবে।

অভিযোগ পাওয়ার পরই মুম্বইয়ের সান্তা ক্রুজ পুলিশ স্টেশনের তরফে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬সি (ডি) ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। অর্থাৎ ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে অভিযুক্ত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। এতে দোষী সাব্যস্ত হলে কমপক্ষে ৬বছর ও সর্বোচ্চ ১০ বছরের সাজা হতে পারে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আর্থার রোডের জেলে পাঠানো হয়েছে কায়ান সিয়োডিয়াকে। গত দুবছর ধরে তিনি নানাবতী হাসপাতালে কার্ডিওলজির ট্রেনিং নিচ্ছিলেন। প্রথমে নিগৃহীতা মহিলা অভিযোগ জানাতে না চাইলেও পরে রাজি হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। জানা গিয়েছে, কায়ান সিয়োডিয়া বারবার মহিলাকে ফোন করে যৌনমিলনের জন্য চাপ দিতেন।

মহিলা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার তিনদিন পরে কায়ান সিনিয়র চিকিৎসকের অনুপস্থিতিতে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে আসেন। জিজ্ঞাসা করেন কেন তিনি ঘুমের বড়ি খেয়েছেন। এইসব কথা বলার পর অভিযুক্ত চিকিৎসক মহিলাকে যৌন হেনস্থা করেন।

এদিকে হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, পুলিশকে সবরকমভাবে তদন্তে সহযোগিতা করা হচ্ছে। এছাড়া হাসপাতালের তরফেও তদন্ত চালানো হচ্ছে। এই ধরনের ঘটনা কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না।

English summary
A resident doctor at Nanavati hospital in Juhu was arrested on Wednesday for sexually assaulting a patient in the intensive care unit six months ago.
Please Wait while comments are loading...