Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

কাবেরী ইস্যুতে স্তব্ধ কর্ণাটক : গাড়ি না পেয়ে হবু বধূর বেঙ্গালুরু থেকে তামিলনাড়ু পদযাত্রা

  • By: OneIndia Bengali Digital Desk
Subscribe to Oneindia News

বেঙ্গালুরু, ১৩ সেপ্টেম্বর : কাবেরী জলবণ্টন বিতর্কে কর্ণাটক প্রায় স্তব্ধ হয়ে পড়েছে। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন। বিভিন্ন জায়গায় বাস-লরি সহ সরকারি সম্পত্তি পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। রাস্তায় রাস্তায় জ্বলছে আগুন, বেঙ্গালুরু শহরের ১৬ টি জায়গায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। [স্ত্রী সতীত্বের পরীক্ষায় ফেল, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বিয়ে ভাঙলেন স্বামী]

তবে এসব বিপর্যয় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে কি ভালোবাসার কাছে? হয়ত নয়। বুধবার বেঙ্গালুরুর মেয়ে প্রেমার বিয়ে হবে তামিলনাড়ু নিবাসী এক যুবকের সঙ্গে। আর নিজের বিয়ের অনুষ্ঠানকে সুসম্পন্ন করতেই গাড়িঘোড়া না পেয়ে আত্মীয়দের নিয়ে একেবারে পায়ে হেঁটে তামিনলাড়ু চলেছেন তিনি। [স্ত্রী পরপুরুষকে ভালোবাসে, খুশি মনে দুজনের বিয়ে দিলেন স্বামী]

স্তব্ধ কর্ণাটকে গাড়ি অমিল, হবু বধূর তামিলনাড়ু অবধি পদযাত্রা

বিয়ের আগের দিন সাধারণত দুই পরিবারে খুশির আমেজ থাকে। আনন্দে মেতে ওঠে দুই পরিবার। কিন্তু এক্ষেত্রে পরিস্থিতি খানিক ভিন্ন। তামিলনাড়ুর বাণীয়মবাড়ি যেতে প্রেমা গোটা পরিবার নিয়ে রাস্তায় নেমে এসেছেন। বাস, অটো সহ সমস্ত যানবাহনকে হাত নেড়ে ডাকা হয়ে গিয়েছে। ফাঁকা রাস্তায় দু'একটি গাড়ি থাকলেও কেউ যেতে রাজি নয়। [বিয়ের মণ্ডপে সাত পাক ঘুরেই মৃত স্ত্রী, শবদেহ নিয়ে বাড়ি ফিরলেন স্বামী]

ফলে উপায় না দেখে ফাঁকা হাইওয়ে দিয়ে হাঁটা লাগিয়েছে প্রেমার গোটা পরিবার। জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেছেন, মোট ৬০০ জন অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তবে এখন শেষপর্যন্ত মাত্র ২০ জন এসে উপস্থিত হয়েছে। আমরাও ভারতীয়। এভাবে অশান্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি করা কখনও উচিত নয়। [স্ত্রীকে ছেড়ে 'প্রেমে পাগল' শাশুড়িকে বিয়ে করল এক যুবক]

জানা গিয়েছে, কর্ণাটক ও তামিলনাড়ু, দু'তরফেই বিক্ষোভকারীরা সরকারি বাসে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। ফলে কর্ণাটক থেকে তামিলনাড়ুগামী বাস পরিষেবা আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

English summary
Bride From Bengaluru Walks For Hours As Cauvery Protests Hit Buses To Tamil Nadu
Please Wait while comments are loading...