Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

বর্তমান প্রেক্ষাপটে কোনদিকে গড়াতে পারে তামিলনাড়ু রাজনীতি? চারটি সম্ভাবনা

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

তামিলনাড়ুর বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি প্রতিমুহূর্তে রং বদল করছে। কখনও মনে হচ্ছে শশীকলা নটরাজন ছাপিয়ে যাবেন পন্নিরসেলবমকে, তো কখনও নিজের শক্তি হাজির করে রাজ্য রাজনীতিতে হুলুস্থুল তৈরি করছেন। বলা যায় একই দলের দুই যুযুধান পক্ষ শশীকলা ও পন্নিরসেলবমের লড়াই তামিলনাড়ুর রাজনীতিতে নতুন করে আলোড়ন তৈরি করেছে।[শশীকলাকে মুখ্যমন্ত্রী হতে না দেওয়ার ষড়যন্ত্রে শামিল তামিলনাড়ুর রাজ্যপালও!]

জয়ললিতার মৃত্যুর পরে তাঁর ঘনিষ্ঠ দুই সহযোগীই একে অপরের বিরুদ্ধে আক্রমণ করে মুখ্যমন্ত্রীর পদ দখলের লড়াইয়ে নেমেছেন। ও পন্নিরসেলবম এবার ধরলে মোট তিনবার মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছেন। আর প্রতিবারই জয়ললিতার আসনে বসেছেন, উঠে গিয়েছেন।[নতুন কোনও রাজনৈতিক দল গড়ার ইচ্ছে নেই : ও পন্নিরসেলবম]

জয়ললিতা ডিসেম্বরে মারা যাওয়ার পরে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে স্বাভাবিক পছন্দ ছিলেন তিনিই। সেইমতো তিনি তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হন। তবে অপরদিকে হঠাৎ করে শশীকলার উত্থান ও এআইএডিএমকে নেত্রী হিসাবে নিজেকে মেলে ধরে মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারের দিকে হাত বাড়ানোয় গোলমালের সূত্রপাত। ফলে ফলেই পন্নিরসেলবম ও অন্য শীর্ষ এআইএডিএমকে নেতারা শশীকলার বিরুদ্ধে চলে গিয়েছেন। এই অবস্থায় তামিলনাড়ুর রাজনীতিতে নতুন কী সম্ভাবনা তৈরি হতে পারে তা জেনে নেওয়া যাক একনজরে।[শশীকলার যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন দক্ষিণী নায়ক কামাল হাসান]

প্রথম সম্ভাবনা

প্রথম সম্ভাবনা

এআইএডিএমকের ১৩৩ জন বিধায়ক শশীকলাকে সমর্থন করবেন। বিধানসভায় নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে শশীকলা আহ্বান জানাবেন। এরপরই নিজের শক্তি প্রদর্শন করে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে সরকার গঠন করবেন শশীকলা নটরাজন। দলের মুখ্য কার্যালয়ে যে বিধায়কেরা তার সঙ্গে ছিল তারা এখনও সঙ্গে থাকলে এমনটাই হতে পারে। যার সম্ভাবনা প্রবল।

দ্বিতীয় সম্ভাবনা

দ্বিতীয় সম্ভাবনা

রাজ্যপাল সি বিদ্যাসাগর রাও কোনও পরিষ্কার সিদ্ধান্তে না আসা পর্যন্ত পন্নিরসেলবমকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে কাজ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিতে পারেন। আগামী সপ্তাহে সুপ্রিম কোর্ট আয় বহির্ভূত সম্পত্তি মামলায় শশীকলার পক্ষে বা বিপক্ষে রায় দিতে পারে। ততদিন রাজ্যপাল অপেক্ষা করতে পারেন। যদি শশীকলা দোষী হন তাহলে মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন না। আর যদি নির্দোষ হন তাহলে মুখ্যমন্ত্রী হওয়া আটকাবে না তাঁর। এর সম্ভাবনাও প্রবল।

তৃতীয় সম্ভাবনা

তৃতীয় সম্ভাবনা

রাজ্যপাল একদিকে পন্নিরসেলবম ও অন্যদিকে শশীকলা নটরাজনের বক্তব্য শোনার পরে সন্তুষ্ট না হলে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করতে পারেন তামিলনাড়ুতে। এর ফলে ফের নতুন করে নির্বাচন হবে। এমন হলে জয়ললিতাকে বাদ দিয়ে লড়াইয়ের ময়দানে নামতে হবে এআইএডিএমকে-কে। যা সম্ভবত শশীকলা বা পন্নিরসেলবম কেউই চাইবেন না। ফলে এর সম্ভাবনা খুব বেশি নেই।

চতুর্থ সম্ভাবনা

চতুর্থ সম্ভাবনা

রাজ্যপাল সি বিদ্যাসাগর রাও পন্নিরসেলবমকে বলতে পারেন মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করে যেতে। বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতেও বলতে পারেন। কারণ ইতিমধ্যে পন্নিরসেলবম দাবি করেছেন, অনেক বিধায়ক নাকি তার সঙ্গে রয়েছে। ফলে সেটা করতে গেলেও অন্তত ৯০ জনের সমর্থন পন্নিরসেলবমের সঙ্গে থাকা জরুরি। যার সম্ভাবনাও খুব কম।

English summary
fast-changing political situation in Tamil Nadu has produced a clutch of possibilities in the power struggle between chief minister O Panneerselvam and AIADMK chief Sasikala Natarajan — elevated to their current ranks after the death of J Jayalalithaa, who held both positions.
Please Wait while comments are loading...