Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

(ছবি) পাঁচ রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রিত্বের দৌড়ে কোন দলের কারা এগিয়ে? জেনে নিন

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল বেরিয়ে গিয়েছে। উত্তরপ্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বিজেপি জয়ী হয়েছে। পাঞ্জাবে ফের একদশক পরে ক্ষমতা দখল করেছে কংগ্রেস। এদিকে মণিপুর ও গোয়ায় বিজেপি-কংগ্রেস কোনও দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। এখন দেখার সেখানে কোনও দল সরকার গঠন করে।

১৯৫২-২০১৭ : উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের ইতিহাস একনজরে

উত্তরপ্রদেশ সহ বাকী রাজ্যে গেরুয়া ঝড়, রাজ্যসভায় জায়গা মজবুত বিজেপির

এই জয় কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে বিজেপির হাত আরও শক্ত করল। পাশাপাশি কংগ্রেস সহ আঞ্চলিক দলগুলিকেও একেবারে সাইটলাইনে ঠেলে দিয়েছে। নরেন্দ্র মোদী ম্যাজিকে চুরমার হয়ে গিয়েছে বিরোধীদের স্বপ্ন। একনজরে দেখে নেওয়া যাক পাঁচ রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে কোন মুখগুলি উঠে আসছে।

কেশব প্রসাদ মৌর্য (উত্তরপ্রদেশ)

কেশব প্রসাদ মৌর্য (উত্তরপ্রদেশ)

উত্তরপ্রদেশে বিজেপি রাজ্য প্রধান হলেন কেশব প্রসাদ মৌর্য। তিনি লোকসভায় ফুলপুর কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হয়েছেন। এবারের নির্বাচনের পরে তিনি উত্তরপ্রদেশে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে। বিজেপির এই জয়ের পিছনে বড় কারিগর তিনি। মৌর্যর যাদব সম্প্রদায়ের নন সেটা তাঁর পক্ষে যেতে পারে। আর যেটা বিপক্ষে যেতে পারে সেটা হল তাঁর সেভাবে প্রশাসনিক কোনও অভিজ্ঞতা না থাকা। [আঞ্চলিক দলগুলি কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বাঁধুন নিজেদের সর্বনাশের কথা মাথায় রেখে]

রাজনাথ সিং (উত্তরপ্রদেশ)

রাজনাথ সিং (উত্তরপ্রদেশ)

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং শেষবার এরাজ্যে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। তিনি দু'বার এই রাজ্যের বিজেপি সভাপতিও থেকেছেন। নির্বাচনের আগে তিনি সারা রাজ্যে ১২০টি ছোটবড় জনসভা করেছেন। দলের জয়ে অন্যতম অবদান রেখেছেন। তবে প্রশ্ন হল, কেন্দ্রের গুরুত্বপূর্ণ পদ ছেড়ে তাঁকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য বেছে নেবে কিনা বিজেপি। [কেন মায়াবতীর বসপার হার উত্তরপ্রদেশের রাজনীতিতে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ]

মনোজ সিনহা (উত্তরপ্রদেশ)

মনোজ সিনহা (উত্তরপ্রদেশ)

উত্তরপ্রদেশের গাজিপুরের এই সাংসদ অন্যতম দাবিদার মুখ্যমন্ত্রিত্বের। এই মুহূর্তে তিনি টেলিকম ও রেল প্রতিমন্ত্রীর কাজ সামলাচ্ছেন। দলের ও দলের কর্মীদের মধ্যে তাঁর গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে ভালোই। নিজের পূর্ব উত্তরপ্রদেশের আসনেও তিনি সমান জনপ্রিয়।

যোগী আদিত্যনাথ (উত্তরপ্রদেশ)

যোগী আদিত্যনাথ (উত্তরপ্রদেশ)

উপরের তিনজন বাদে উত্তরপ্রদেশের আর এক হেভিওয়েট বিজেপি নেতা ও সাংসদ যোগী আদিত্যনাথ মুখ্যমন্ত্রিত্বের দৌড়ে রয়েছেন। তবে এই হিন্দুত্ববাদী নেতার একপেশে রাজনীতি তাঁর ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করতে পারে। বরুণ গান্ধীও এই দৌড়ে রয়েছেন।

ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং (পাঞ্জাব)

ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং (পাঞ্জাব)

প্রচারের শুরু থেকেই কংগ্রেস জানিয়ে এসেছে পাঞ্জাবে জিতলে ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংই হবেন মুখ্যমন্ত্রী। সেইমতো অমরিন্দর লাম্বি ও পাতিয়ালা থেকে দাঁড়িয়ে একটি থেকে জিতেছেন। মুখ্যমন্ত্রিত্বের দৌঁড়ে তিনিই সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। তবে পাঞ্জাবের ক্ষেত্রে লড়াই মূলত উপমুখ্যমন্ত্রী কে হবেন তার। এক্ষেত্রে অমৃতসর পূর্ব থেকে জয়ী নভজ্যোত সিং সিধু এই পদ পেতে পারেন।

বিসি খান্ডুরী (উত্তরাখণ্ড)

বিসি খান্ডুরী (উত্তরাখণ্ড)

উত্তরাখণ্ডে বিজেপি পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলেও কে মুখ্যমন্ত্রী হবেন তা এখনও নিশ্চিত নয়। বিজেপির তরফে কোনও প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়নি। তবে উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিসি খান্ডুরী পদের দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন। তবে ৮২ বছর বয়সী এই নেতাকে পদ দেওয়া হয় কিনা সেটাই দেখার।

বিজয় বহুগুণা (উত্তরাখণ্ড)

বিজয় বহুগুণা (উত্তরাখণ্ড)

বহুদিনের কংগ্রেস নেতা বিজয় বহুগুণা নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগ দেন। তিনি মুখ্যমন্ত্রিত্বের পদের দৌড়ে অনেকটা এগিয়ে রয়েছেন বলে দলীয় সূত্রে খবর। এছাড়া রমেশ পখরিয়াল, ভগত সিং কোশিয়ারী ও অজয় ভাট রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রিত্বের দৌড়ে।

চৌবা সিং (মণিপুর)

চৌবা সিং (মণিপুর)

মণিপুরে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। তবে যদি অন্যদের মদতে কংগ্রেসকে সরিয়ে বিজেপি সরকার গঠন করে তাহলে চৌবা সিং এগিয়ে থাকবেন। তিনি অটল বিহারী বাজপেয়ীর আমলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ছিলেন। তিনবার লোকসভার সাংসদ ও একবার উপমুখ্যমন্ত্রীও ছিলেন।

এন বীরেন সিং (মণিপুর)

এন বীরেন সিং (মণিপুর)

হেইনগ্যাং বিধানসভা থেকে এন বীরেন সিং পরপর তিনবার নির্বাচনে জিতেছেন। তিনি এখন কংগ্রেস দলে রয়েছেন। প্রাক্তন ফুটবলার বীরেন সিং বিএসএফ জলন্ধর দলের হয়ে খেলেছেন। তিনি একসময়ে সাংবাদিকতাও করেছেন।

মনোহর পার্রিকর (গোয়া)

মনোহর পার্রিকর (গোয়া)

গোয়ায় বিজেপি-কংগ্রেস একেবারে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে। কেউই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। গোয়ায় বিজেপি ক্ষমতায় ফিরলে আগের মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পার্রিকরকে ফেরানো হতে পারে। ২০১৪ সালে তিনি মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে পদত্যাগ করে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রকের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছেন। তাঁর জনপ্রিয়তার কথা মাথায় রেখে পার্রিকরকে ফের গোয়ার দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে।

English summary
Assembly Election Results 2017: Potential CM candidates in 5 states
Please Wait while comments are loading...