Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

দেশের ৫ সিরিয়াল কিলার, যাদের কাহিনী শুনলে রক্ত হিম হয়ে যায় !

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

একের পর এক খুন, কিন্তু তারপরও অদ্ভুত নির্লিপ্ততা চোখে মুখে। কারোর অদ্ভুত উদাসীন চোখের চাউনি, কেউ বা ভেতর ভেতর চরম অস্থির। কখনওবা কেউ পুলিশের জেরার মুখে শিশুর সারল্যে কবুল করেছে নিজের সব দোষ। এরকম আরও অনেক ধরনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট নিয়ে উঠে আসে একজন সিরিয়াল কিলার।[(ছবি) খুনের জন্য ব্যবহৃত ১০টি উদ্ভট অস্ত্র!]

ভারতের ইতিহাসে অপরাধের কিনারা করতে গিয়ে পুলিশ প্রশাসনকে প্রায়ই সামনাসামনি হতে হয়েছে, এই সমস্ত ভয়ঙ্কর মানসিকতার অপরাধীদের সঙ্গে। চিনেনিন তাদের মধ্যে ৫ জন 'সিরিয়াল কিলার'-কে।

নিঠারি কিলার

নিঠারি কিলার

মনিন্দর সিং পান্ধার ও তার পরিচারক সুরিন্দর কোহলি মিলে একেরপর এক শিশু হত্যার দায়ে ২০০৬ সালে গ্রেফতার হন। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তারা নিঠারি গ্রামের বাচ্চাদের তুলে এনে, তাদের মেরে মানব শিশুর মাংস খেতেন। অনেককে ধর্ষণও করেছেন। এছাড়াও শিশুদের ওপর আরও অনেক যৌন অত্যাচার করে ওই দুই ভয়ানক নরখাদক। নয়ডার প্রান্তে বাচ্চাদের একের পর এক নরকঙ্কাল উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ এই ঘটনার উন্মোচন করে।

অটো শঙ্কর

অটো শঙ্কর

১৯৮৮ সালে চেন্নাইয়ের থিরুভনমিয়ার থেকে হঠাৎ উধাও হয়ে যায় ৯ জন মেয়ে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ মনে করে , ওই মেয়েদের বিয়ে না দিতে পারায়, পরিবারের লোকজন তাদের বিক্রি করে দেয়। কিন্তু পরে তদন্তের গতিপ্রকৃতি অনুযায়ী জানা যায়, শঙ্কর নামের এক অটোচালক ওই এলাকায় নির্দিষ্ট একটি মদের দোকানের সামনে থেকে মহিলাদের অপহরণ করে, তারপর তাদের মেরে মহিলাদের সৎকারের কাজ করে, তাদের চিতাভস্ম বঙ্গোপোসাগরে ফেলে দেয়। তার এই অদ্ভুত ধরনের খুনের জন্য সে 'অটো শঙ্কর' নামে পরিচিত।

চার্লস সোবরাজ

চার্লস সোবরাজ

ভারতে আজ পর্যন্ত যতগুলি সিরিয়াল কিলার-এর নাম উঠে এসেছে তার মধ্যে সবচেয়ে কুখ্যাত নাম চার্লস সোবরাজ। সোবরাজ শুধু সুদর্শনই ছিলেন না, ছিলেন মিষ্টভাষীও। তাতেই তাঁর আকর্ষণে আসে বহু মানুষ। আকৃষ্ট হন বহু মহিলা। আর তারপরই তাদের খুন করতে থাকে সোবরাজ। সে 'বিকিনি কিলার' হিসাবেও পরিচিত। সে মনে করত এভাবে মানুষ খুন করে সে সমাজকে পরিস্কার করছে। গ্রেফতারের পর তিহার জেল থেকে পালানোর মতো চাঞ্চল্যকর ঘটনাও রয়েছে এই সিরিয়াল কিলারের জীবনীতে।

সায়ানাইড মোহন

সায়ানাইড মোহন

মোহন কুমার ছিল পেশায় একজন শিক্ষক। প্রতিদিন যাতায়াতের পথে বাসস্টপে সে স্বল্পবিত্ত বা মধ্যবিত্ত মহিলাদের খুঁজে বেড়াত। তারপর তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতিয়ে নিত সে। বিয়ের প্রস্তাবও দিত। আর তারপরই বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে , একেরপর এক মহিলাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যেত সে। তারপর বিয়ের আগে সংশ্লিষ্ট মহিলার সঙ্গে যৌনমিলন ঘটাবার পর সায়ানাইড দিয়ে মহিলাকে মেরে ফেলত মোহন। এরপর তাদের টাকা পয়সা গয়না হাতিয়ে পালাত কুখ্যাত অপরাধী সায়ানাইড মোহন।

রমন রাঘব

রমন রাঘব

৬০ -এর দশকের কুখ্যাত দুষ্কৃতি রমন রাঘব 'সাইকো রমন' নামে পরিচিত। মুম্বইয়ে একেরপর এক খুনের ঘটনার কিনারা করতে গিয়ে সামনে আসে রমন রাঘব নামের এই ব্যক্তি। মূলত মুম্বইয়ের ফুটপাথে পড়ে থাকা লোকজনকে খুন করত রমন। এছা়ড়াও বহু বস্তিবাসীকে খুন করেছে সে। যাঁরাই রাতে দরজা বা জানলা খুলে ঘুমোতেন, সেই সমস্ত বস্তিবাসীকে খুন করত রমন রাঘব।

English summary
Indian Serial Killers Who Will Give You GooseBumps.Killing one after another became their passion.
Please Wait while comments are loading...